.: যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীদের নতুন ক্যামেরা অদৃশ্য বস্তুর ছবি তুলবে!

 

 
Welcome to the VinnoKhoobor, the another different poroject of BLACK i''z. We wish you a very warm and bright day. It is our pleasure to see you in our website.

 



..BACK TO PAST
....এই পাতায় মোট ৩-টা Post রয়েছে,.
পরবর্তি Post-দেখার জন্য নিচে আসুন,.
যথ্রাক্রমে.....,

 

ax2000_9
 
যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীরা অর্জন করলেন নতুন এক সাফল্য।দীর্ঘদিন গবেষণা করে তারা এমন একটি ক্যামেরা আবিষ্কার করেছেন, যা কোণের আড়ালে বা দৃষ্টির বাইরে থাকা অংশেরও ছবি তুলতে পারবে।গবেষণার জন্য তৈরী মডেল ক্যামেরাটি সামনের দৃশ্যকে আলোকিত করে তুলতে তীব্র কিন্তু অতি সংক্ষিপ্ত লেজার রশ্মির ঝলকানি ব্যবহার করে।
ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি)’র গবেষকরা এমন একটি ক্যামেরা আবিষ্কার করেছেন, যেটি চারপাশ থেকে প্রতিফলিত হওয়া ক্ষুদ্র মাত্রার আলো সংগ্রহ করে পরিপার্শ্বের একটি সাদামাটা চিত্র তৈরি করে। তার মানে দেয়াল বা দরজার আড়ালে থাকা কোণের অন্য পাশের বস্তু বা দৃশ্যও এই ক্যামেরা বন্দী করতে পারবে। তাঁরা মনে করছেন, অনুসন্ধান ও উদ্ধার তৎপরতায় এবং রোবটের চোখে দৃষ্টি দিতে এটি কাজে লাগতে পারে।

 

 Top-10-Tips-for-Buying-the-Right-Camera

 
এমআইটির মিডিয়া ল্যাবের ‘ক্যামেরা কালচার’ গ্রুপের প্রধান ও গবেষক দলের প্রধান, অধ্যাপক রমেশ রাস্কার বলেন, ‘এটা হচ্ছে এক্স-রে ব্যবহার ছাড়াই এক্স-রে দৃষ্টিশক্তি অর্জন করার মতো’। তিনি বলেন, ‘তিন বছর আগে অনেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা তাঁকে বলেছিলেন, এটা করা অসম্ভব’।একটি ঘরের সমান আকারের ক্যামেরাটির মূল বিষয় হচ্ছে একটি ফেমটোসেকেন্ড লেজার (উচ্চক্ষমতার আলোর উৎস), যা অতি ক্ষুদ্র আলোর বিচ্ছুরণ ঘটাতে পারে। ওই আলোর ছটার স্থায়িত্ব মাত্র ০ দশমিক ০০০০০০০০০০০০০০১ সেকেন্ড।
 
পারমাণবিক মাত্রায় প্রতিক্রিয়ার মাপজোক করতে রসায়নবিদেরা এই আলোর উৎসটি ব্যবহার করে থাকেন। সামরিক অনুসন্ধানী বিমানও কিছুটা এ ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহার করে। ক্যামেরা থেকে বিচ্ছুরিত আলো চারপাশে ঘুরতে ও প্রতিফলিত হতে থাকে। ঘটনাস্থলে কোনো কোণ থাকলে তা এড়িয়ে অন্যদিকেও কিছু আলো যাবে। সব আলোই আবার প্রতিফলিত হয়ে ক্যামেরার সেন্সরে ফিরে আসবে। এ থেকেই ক্যামেরাটি সংগ্রহ করবে লেন্সের আড়ালে থাকা বস্তুর কাঠামো।এ প্রক্রিয়ায় আলোর বিচ্ছুরণের সময় খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। গবেষকেরা বলেছেন, এ বিষয়ে এখনো বেশ কিছু গবেষণার প্রয়োজন আছে। আর এটিকে বহনযোগ্য আকারে আনতে সময় লাগবে। তাঁরা এ প্রযুক্তি দিয়ে উন্নত ধরণের এনডোস্কোপ তৈরীর কথা ভাবছেন।

 
আজব সব খবরঃ এই পৃথিবীর আনাচে কানাচে প্রতি নিয়ত ঘটে যায় কতশত খবর।সেই সব খবরের মাঝে আমাদের চোখ আটকে যায় আজব সব খবরে, ভিন্ন কিছু খবরে ।

 

Welcome to the family of BLACK i''z,...

.: সনির ওপর সাইবার হামলা!!

 

 

 Sony-Unit-Network

 

কিছুসাইবার হামলার শিকার হয়েছে বিশ্বখ্যাত ইলেকট্রনিকস পণ্যসামগ্রী নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সনি। এই হামলা হয়েছে প্রতিষ্ঠানটির ইউরোপভিত্তিক কেন্দ্রটিতে। আর এ হামলার কারণে শেয়ারবাজারে বড় ধরনের ধসের মুখে পড়েছে জাপানের এই প্রতিষ্ঠানটি। গেল সোমবার গত দুই বছরের তুলনায় সবচেয়ে কম বাজারদর ছিল সনির নামের পাশে। সেই অঙ্কটি ছিল ৩ শতাংশেরও নিচে!
টোকিওর শেয়ারবাজারে সনির বাজারদর ছিল ৩ দশমিক ১৪ শতাংশ, যার অর্থমূল্য ২ হাজার ৬২ ইয়েন। ২০০৯ সালের মার্চের পরে এটাই ছিল সর্বনিম্ন দর। এদিকে টোকিওতে সনির এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, হ্যাকারদের আক্রমণের পর সনি ইউরোপ লিমিটেডের কোনো রকম অতি গোপন তথ্য চুরি যায়নি এবং সেগুলো প্রকাশিতও হয়নি ইন্টারনেটে। মুখপাত্র বলেছেন, ‘এটা সত্যি, ওয়েবসাইটটি অবৈধভাবে হাতানো হয়েছে। তবে হ্যাকাররা যেসব তথ্য চুরি করেছে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে, তার সবই সনির ওয়েবসাইটে রক্ষিত আছে।’
গত রোববার সকালে সনি ইউরোপের লন্ডনভিত্তিক মূল কার্যালয় হামলার বিষয়টি আবিষ্কার করে। মূলত যোগাযোগ-প্রতিষ্ঠানটির সম্প্রচার যন্ত্রপাতির বিষয়ে সনদ পাওয়া প্রশিক্ষণার্থীদের ব্যক্তিগত তথ্যের ওপরই হ্যাকারদের মূল লক্ষ্য ছিল। তবে হ্যাকাররা যেসব তথ্য চুরি করেছে, সেগুলো এখন সবার জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছে সনি!
উল্লেখ্য, এই হামলার ফলে ১০০ মিলিয়ন ভোক্তার অ্যাকাউন্টের তথ্য চুরি গেছে। বলা হচ্ছে, এ পর্যন্ত এটাই সবচেয়ে বড় তথ্য বেহাতের ঘটনা।

 


সৌর শক্তি চালিত বিমানের আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের যাত্রা শুরু !!!!


 

 

 private_plane

 

বিশ্বে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক ফ্লাইট শুরু করেছে সৌর শক্তিচালিত একটি সুইস বিমান। ‘সোলার ইমপালস’ প্রকল্পের ঐ বিমানটি শুক্রবার সকালে সুইজারল্যান্ডের পশ্চিমাঞ্চলীয় পেয়ারনি বিমানবন্দর থেকে যাত্রা করে ১৩ ঘণ্টা পর ব্রাসেলস বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

সৌর শক্তিচালিত এ বিমানে ১২ হাজার সৌরকোষ আছে। এর গতি ঘণ্টায় ৭০ কিলোমিটার যা বাণিজ্যিক ফ্লাইটের বিমানের গতির ১০ ভাগের এক ভাগ। সুইজারল্যান্ডে ২০১০ সালের এপ্রিলে প্রথম সৌর শক্তি চালিত বিমান উড্ডয়ন করে। তারপর আরো তিনবার সুইজারল্যান্ডের আকাশে ওড়ে সৌর শক্তি চালিত বিমান।

 solar plane

উড্ডয়নকালে বিমানের বৈমানিক আন্দ্রে বোসব্যার্গ টেলিফোনে এপিকে বলেন, “নবায়নযোগ্য জ্বালানী ও শক্তি সঞ্চয়ের বর্তমান প্রযুক্তি দিয়ে আমরা কতটুকু কাজ করতে পারি তার একটি প্রদর্শনী এটা।” এ প্রযুক্তির মাধ্যমে সৌর শক্তির সাহায্যে গাড়ী চালানো এবং বাসাবাড়ীতে বিদ্যুতের চাহিদা মেটানো যাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। ২০০৩ সালে ‘সোলার ইমপালস’প্রকল্প শুরু হয়। ১০ বছর মেয়াদি এ প্রকল্পে বরাদ্দ করা হয় ১২ কোটি ৮০ লাখ ডলার।

 

 

 

dsds

এখানে সকল পৃস্টা দেখতে পাবেন,..

 

OOur Guest & Visitors of this page!!

 

size=35
BLACK i''z a way to da little friendshop

SSee where from your Friends

Various Album Of B-Eyez...,

VinnoKhobor.., @ FACEbook.,

BBlack i''z wants to see you again..,

BBLACK i''z, it is dream, it is real, BLACK i''z da real dream.,