BLACK blog এ আপনাকে স্বাগতম! আপনি হতে পারেন BLACK blog পরিবারের নিয়মিত একজন সদস্য। আপনার লেখা প্রকাশ করতে পারেন আমাদের যেকোন বিভাগে। আমাদের বিভাগ সমূহঃ " পৃথিবী আজব ঘটনা, গুনিজন কহেন , জন্মদিনের উইস করার এসএমএস, সমস্যা পরামর্শ সমাধান , মেয়েদের মেহেদি ডিজাইন, বাচ্চাদের নাম , পৃথিবীর ঐতিহাসিক প্রবাদ, পর্দার পেছনের ঘটনা, যত অদ্ভুত আবিস্কার , কাল্পনিক কল্পনা, অন্যান্য এবং আরও কিছু, পৃথিবী আজব ঘটনা, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৫, গুনিজন কহেন , জন্মদিনের উইস করার এসএমএস, সমস্যা পরামর্শ সমাধান , মেয়েদের মেহেদি ডিজাইন, বাচ্চাদের নাম , পৃথিবীর ঐতিহাসিক প্রবাদ, পর্দার পেছনের ঘটনা, যত অদ্ভুত আবিস্কার , কাল্পনিক কল্পনা, অন্যান্য এবং আরও কিছু, পৃথিবী আজব ঘটনা, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৫, গুনিজন কহেন , জন্মদিনের উইস করার এসএমএস, সমস্যা পরামর্শ সমাধান , মেয়েদের মেহেদি ডিজাইন, বাচ্চাদের নাম , পৃথিবীর ঐতিহাসিক প্রবাদ, পর্দার পেছনের ঘটনা, যত অদ্ভুত আবিস্কার , কাল্পনিক কল্পনা, গুনিজন কহেন, অন্যান্য এবং আরও কিছু, পৃথিবী আজব ঘটনা, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৫, গুনিজন কহেন , জন্মদিনের উইস করার এসএমএস, সমস্যা পরামর্শ সমাধান , মেয়েদের মেহেদি ডিজাইন, বাচ্চাদের নাম , পৃথিবীর ঐতিহাসিক প্রবাদ, পর্দার পেছনের ঘটনা, যত অদ্ভুত আবিস্কার , কাল্পনিক কল্পনা" যে কোন বিষয় সম্পর্কে। ধন্যবাদ - BLACK iz Limited এর পক্ষ থেকে! অন্যান্য এবং আরও কিছু, পৃথিবী আজব ঘটনা, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৫, গুনিজন কহেন , জন্মদিনের উইস করার এসএমএস, সমস্যা পরামর্শ সমাধান , মেয়েদের মেহেদি ডিজাইন, বাচ্চাদের নাম , পৃথিবীর ঐতিহাসিক প্রবাদ, পর্দার পেছনের ঘটনা, যত অদ্ভুত আবিস্কার , কাল্পনিক কল্পনা, অন্যান্য এবং আরও কিছু, পৃথিবী আজব ঘটনা, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৫, গুনিজন কহেন , জন্মদিনের উইস করার এসএমএস, সমস্যা পরামর্শ সমাধান , মেয়েদের মেহেদি ডিজাইন, বাচ্চাদের নাম , পৃথিবীর ঐতিহাসিক প্রবাদ, পর্দার পেছনের ঘটনা, যত অদ্ভুত আবিস্কার , কাল্পনিক কল্পনা, অন্যান্য এবং আরও কিছু, পৃথিবী আজব ঘটনা, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৫, গুনিজন কহেন , জন্মদিনের উইস করার এসএমএস, সমস্যা পরামর্শ সমাধান , মেয়েদের মেহেদি ডিজাইন, বাচ্চাদের নাম , পৃথিবীর ঐতিহাসিক প্রবাদ,  পর্দার পেছনের ঘটনা, যত অদ্ভুত আবিস্কার , কাল্পনিক কল্পনা, গুনিজন কহেন, অন্যান্য এবং আরও কিছু, পৃথিবী আজব ঘটনা, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৫, গুনিজন কহেন , জন্মদিনের উইস করার এসএমএস, সমস্যা পরামর্শ সমাধান , মেয়েদের মেহেদি ডিজাইন, বাচ্চাদের নাম , পৃথিবীর ঐতিহাসিক প্রবাদ, পর্দার পেছনের ঘটনা, যত অদ্ভুত আবিস্কার , কাল্পনিক কল্পনা

পিতার রেখে যাওয়া সম্পত্তিতে ছেলে মেয়েদের সমান অধিকার চায় তাদের একটু দেখতে ইচ্ছে করছে।

কোন কোন ছাগলে পিতার রেখে যাওয়া সম্পত্তিতে ছেলে মেয়েদের সমান অধিকার চায় তাদের একটু দেখতে ইচ্ছে করছে।
আচ্ছা ধরুন একজন মারা গেল । তার সম্পত্তিতে ছেলে মেয়ে কতটুকু করে ভাগ পাবে? যারা সুচীল সেজেছেন তারা হয়তো বলবেন সমান। আচ্ছা সেখানে তার স্ত্রী কি কোন অংশ পাবে ? আপনারা যদি বলেন না পাবে না। তাহলে এটা তার স্ত্রীর প্রতি অন্যায় করা হল কি না বলেন? তার কি কিছু অংশ পাওয়া উচিত নয়?
আর যদি আপনি বলেন হ্যা স্ত্রীও পাবে । তাহলে ঐ স্ত্রী দুইবার কেন সম্পত্তি পাচ্ছে? ঐ স্ত্রী একবার পিতার কাছে থেকে পাচ্ছে একবার স্বামীর কাছে থেকে পাচ্ছে। আচ্ছা ঐ ছেলেটি কি সেটা পেল? তাহলে ছেলেটির প্রতি অন্যায় করা হল না?
বৃদ্ধ বাবা মাকে দেখাশোনা করার দায়িত্ব ছেলেদের দেয়া হয়েছে।তার মানে যদি বাবা মারা যায় তাহলে ছেলে মেয়ে সমান সম্পত্তি পেল কিন্তু মায়ের দেখাশুনার দায়িত্ব পড়লো ছেলেদের উপর। তাহলে কে বেশি চাপে পড়লো?
তারপর ছেলেরা মেয়েদের বিয়ে করে তার সকল দায়িত্ব নিয়ে। যে ছেলে আয় করে না তাকে কেউ মেয়ে দেয় না সাধারনত। আচ্ছা সারাজীবন যে এই মেয়েকে ছেলেটি খাওয়াবে পড়াবে এটার কি কোন মূল্য নেই?
দেন মোহর দেয়ার যে বাধ্যবাধকতা আছে সেই চাপ টা কার উপর আপনারা বলতে পারবেন?

আচ্ছা যাই হোক ধরেন এক ব্যাক্তি এক স্ত্রী,এক পূত্র সন্তান,এক কন্যা সন্তান ও ৩২ টাকা রেখে গেছেন।
ইসলামী নিয়মে স্ত্রী পাবে ১/৮ ভাগ । মানে ৪ টাকা। আর থানে ২৮ টাকা।পূত্র পাবে মেয়ের দ্বিগুন মানে
১৮.৬৭ ও মেয়ে পাবে ৯.৩৩ । এখানে দেখেন এই স্ত্রী যার মেয়ে তার কাছেও পেয়েছিলেন তার মেয়ের মত ৯.৩৩ টাকা। মানে তিনি মোট পেলেন ১৩.৩৩ টাকা। এর সাথে স্বামীর দেওয়া দেন মোহর, ভরণ-পোষন ও পূত্রের দেওয়া ভরণ পোষন যুক্ত করুন। তাহলে কি দাড়াল? এছাড়াও একজন ছেলে এর বাইরেও অনেক কিছু পালন করতে হয়। আর ছেলেরা বাবার সম্পত্তি ছাড়া আর কারও সম্পত্তি পায় না । আর যদি অন্য কোন ওয়ারিশ সুত্রে পায় সেখানে তার বোনও সমান পায়। তাই ওটা কাটা কাটি।

এরকম মৃত ব্যক্তির রেখে যাওয়া ওয়ারিশের সম্পর্ক অনুযায়ি আলাদা আলাদা বন্ঠন বিধি আছে যা আর কারও পক্ষে এতো সুন্দর ও সুবিচার করে দেওয়া সম্ভব না।

এরপরও কি আপনারা ইসলামী সম্পত্তি বন্ঠনে বিরোধিতা করবেন?আর যদি করেন তাহলে এর চেয়ে ভালো একটি বন্ঠন ব্যবস্থা করেন যেখানে পূর্নাঙ্গ সাম্যবস্থা আছে। যেখানে মৃতের সকল অংশীদার ন্যায্য অংশ পাবে। আপনাদের উচিত ইসলামী বিধান সবাই যেন মেনে চলে তার জন্য আন্দোলন করা। ঠিক আছে?
—রিদওয়ানুল বারী জিয়ন

ডিজিটাল এনালগ সঞ্চালক

ডিজিটাল এনালগ সঞ্চালক / লাগবো না তোর ডিজিটাল বাংলাদেশ,ফেরত দে আমার এনালগ বাংলাদেশ (Facebook fan page / profile হইতে সংগ্রহীত)



সর্বশেষ ১২টি:

.